অ্যামাজনের বিরুদ্ধে ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত হানার অভিযোগ

ফের বিতর্কে জড়াল অ্যামাজন ইন্ডিয়া। শিখ ধর্মাবলম্বীদের ভাবাবেগে আঘাত দিয়ে তীব্র বিতর্কের মুখে পড়তে হলো বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ এই ই-কমার্স সংস্থাকে। ইতিমধ্যেই কোম্পানির বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

সংবাদ প্রতিদিনের খবরে বলা হয়েছে, ভারতে এই অনলাইন শপিং প্ল্যাটফর্মে বিক্রি করা হচ্ছে টয়লেট ম্যাট। যেখানে ফুটে উঠেছে অমৃতসরের স্বর্ণমন্দিরের ছবি। গুরুদ্বারের ছবি দিয়ে এভাবে টয়লেট ম্যাটের (পাপোশ) বিক্রি কোনোভাবেই মেনে নিতে পারছেন না শিখরা। এভাবে তাদের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করা হচ্ছে বলেই অভিযোগ জানাচ্ছেন সেই সম্প্রদায়ের মানুষ।

অ্যামাজন দেওয়া প্রোডাক্টের ছবিতে দেখা যাচ্ছে, শৌচালয়ে, কমোডের সামনেই রাখা সেই পাপোশ। টয়লেট ম্যাট হিসেবেই ব্যবহার করা হচ্ছে সেটি। কমোডের ঢাকনাতেও একই ছবি।

দিল্লি শিখ গুরুদ্বার ম্যানেজমেন্ট কমিটির প্রধান মনজিন্দর সিং সিরসা এমন কাণ্ডকারখানার তীব্র নিন্দা করে ইতিমধ্যেই অ্যামাজন ইন্ডিয়ার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছেন।

টুইটারে তিনি লেখেন, ‘শিখদের ভাবাবেগ নিয়ে ছিনিমিনি খেলেছে অ্যামাজন।’ টয়লেট ম্যাট বিক্রেতাকে ব্যান করার দাবিও জানিয়েছেন তিনি। সেই সঙ্গে এই ঘটনার জন্য গোটা বিশ্বের কাছে আমাজনকে ক্ষমা চাওয়ার দাবি তুলেছেন।

তবে এই প্রথম নয়। এর আগেও একাধিকবার ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করে বিতর্কের সম্মুখীন হয়েছে অ্যামাজন ইন্ডিয়া। ২০১৮-তে এই অনলাইন সাইটে দেদার বিক্রি হয়েছিল স্বর্ণমন্দিরের ছবি দেওয়া পাপোশ। এছাড়াও শৌচালয়ে ব্যবহার করার নানা জিনিসেও ছিল স্বর্ণমন্দিরের ছবি। তখনও সমালোচিত হয়েছিল অ্যামাজন। বিক্ষোভের মুখে পড়ে সেই সব পণ্য ওয়েবসাইট থেকে সরিয়ে ফেলা হয়েছিল। কিন্তু ফের এই শপিং প্ল্যাটফর্মে একই ঘটনা ঘটায় ক্ষুব্ধ শিখ ধর্মাবলম্বীরা।

 

Please follow and like us:
error

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *